সূরা ফালাক | সূরা ফালাক বাংলা উচ্চারণ

Share this

সূরা আল-ফালাক আল-কুরআনের ১১৩ তম সূরা। এটি মদিনায় অবতীর্ণ হয়েছে। এ সূরার আয়াত সংখ্যা ৫ টি। এ সূরার প্রথম আয়াতের শেষ শব্দ হলো (ফালাক্ব) । এ শব্দ থেকেই এ সূরার নাম সূরা আল-ফালাক রাখা হয়েছে।

সূরা ফালাক অনুবাদ

সূরা ফালাক বাংলা উচ্চারণ

আরো পড়ুন

  • সূরা ফাতিহা বাংলা অনুবাদ
  • সূরা ইখলাস বাংলা অনুবাদ
  • সূরা কদর বাংলা অনুবাদ

সুরা আল ফালাক ও সূরা আন নাস এর মধ্যে গভীর সম্পর্ক রয়েছে। এ সূরা দুটিতে বিভিন্ন জিনিসের অনিষ্ট থেকে আল্লাহ তায়ালার নিকট আশ্রয় প্রার্থনা করা হয়েছে। এ সূরা দুটি নাজিলের কারণ নিম্নরূপ:

একবার লাবীদ ইবনে আসিম নামক এক ইহুদি রাসুলুল্লাহ (স.) এর উপর জাদু করে । এ কাজে সে তার কন্যাদের সাহাগ্য নেয়। তারা গোপনে রাসূল (স.) এর একটি পবিত্র চুল সংগ্রহ করে এবং তাতে এগারোটি গিরা দিয়ে জাদু করে।

ফলে রাসুল (স.) অসুস্থ হয়ে পড়েন। জাদুর কারণে রাসুলুল্লাহ (স.) এর কষ্ট হতে থাকে। এমতাবস্থায় আল্লাহ তায়ালা এ সূরা দুটি নজিল করেন। এ সূরা দুটিতে মোট ১১ টি আয়াত রয়েছে। প্রতিটি আয়াত পড়ে প্রতিটি গিরাতে ফুঁক দিলে জাদুর প্রভাব নষ্ট হয়ে যায়। রাসুল (স.) সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে ওঠেন।

ব্যাখ্যা

এ সূরায় আল্লাহ তায়ালার নিকট অনিষ্টকর বস্তু থেকে আশ্রয় চাওয়ার নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। এর প্রথম আয়াতে ঊষার রব আল্লাহর নিকট আশ্রয় প্রার্থনা করা হয়েছে। মূলত পাক সকল শক্তির উৎস। বিশ্বজগতের সবকিছুই তিনি সৃষ্টি করেছেন।

তিনিই রাতকে দিনে এবং দিনকে রাতে রূপান্তর করেন। তিনিই সকাল, সন্ধ্যা, ঊষা ইত্যাদির আগমন গটান। সকল প্রকার অনিষ্ট থেকে তিনিই রক্ষা করেন। এজন্য সূরার প্রথমেই আল্লাহ তায়ালার নিকট আশ্রয় প্রার্থনা করা হয়েছে।

আরো পড়ুন: সূরা নাস এর বাংলা অনুবাদ

এর পরবর্তী আয়াতগুলোতে বিভিন্ন বিষয়ের অনিষ্ট বা ক্ষতি থেকে আশ্রয় চাওয়া হয়েছে। আল্লাহ তায়ালা পৃথিবীর সবকিছুরই স্রষ্টা। এসব সৃষ্টির মধ্যে অনেক হিংস্র, বিষাক্ত ও অনিষ্টকর সৃষ্টিও রয়েছে। এগুলো মানুষের পরীক্ষা করার জন্য সৃষ্টি করা হয়েছে।

এগুলো অনিষ্ট থেকে রক্ষাকর্তা হলেন মহান আল্লাহ। গভীর রাতে নানরূপ বিপদাপদ ঘটতে পারে। যেমন; জিন, শয়তান, চোর-ডাকাত, শত্রুর আক্রমণ ইত্যাদি। এসবের অনিষ্ট থেকেও রক্ষাকর্তা মহান আল্লাহ ।

তাছাড়া জাদুকর নর নারী ও হিংসুকের হিংসা থেকে আশ্রয়দাতাও আল্লাহ তায়ালা। আয়াতগুলোতে উল্লিখিত সমুদয় বিষয় থেকে আল্লাহ তায়ালার নিকট আশ্রয় প্রার্থনা করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.